মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

মুক্তিযোদ্ধা ভাতা

মুক্তিযোদ্ধাদের ৫ হাজার টাকা করে সম্মানী ভাতা প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়। ডিসেম্বর থেকেই দেশের সকল মুক্তিযোদ্ধাকে এ ভাতা প্রদান করা হবে বলে মন্ত্রণালয় সূত্র নিশ্চিত করেছে। সেপ্টেম্বর মাসের সিদ্ধান্ত মোতাবেক মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতিমাসে ৩ হাজার টাকা করে সম্মানী ভাতা প্রদানের আদেশ এ সপ্তাহের শেষ নাগাদ দেশের সকল জেলায় পাঠানো হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র নিশ্চিত করেছে। নির্বাচিত ১ লাখ ৮৭ হাজার ৩০৮ মুক্তিযোদ্ধকে ৩ হাজার টাকা সম্মানী ভাতা প্রদান করা হবে। যা এ বছরের জুলাই থেকে কার্যকর হবে।
সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বকেয়া ভাতার অর্থ সকল মুক্তিযোদ্ধাকে প্রদান করা হবে। বাঙালী জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ কৃতজ্ঞতা ও সম্মান জানাতেই সরকার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বর্তমানে সরকার ১ লাখ ৫০ হাজার মুক্তিযোদ্ধাকে প্রতিমাসে ২ হাজার টাকা করে সম্মানী ভাতা প্রদান করে আসছে।
আওয়ামী লীগ সরকার ১৯৯৬ সালে প্রথমবারের মতো অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য প্রতিমাসে ৩০০ টাকা হারে ভাতা প্রদান কার্যক্রম চালু করে। পরবর্তীতে সচ্ছল ও অসচ্ছল সকল মুক্তিযোদ্ধার জন্য এ ভাতা প্রদানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। ২০০৮ সাল পর্যন্ত ১ লাখ মুক্তিযোদ্ধাকে ৯ শ’ টাকা করে সম্মানী ভাতা প্রদান করা হয়। পরবর্তীতে বর্তমান সরকারের আমলে মুক্তিযোদ্ধাদের সংখ্যা ১ লাখ ২৫ হাজারে উন্নীত করা হয় এবং ভাতা নির্ধারণ করা হয় ১৫ শ’ টাকা। পরে ভাতার আওতাধীন মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা ১ লাখ ৫০ হাজারে উন্নীত করে ২ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়, যা চলমান রয়েছে।
গত ৩০ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানী ভাতা ২ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩ হাজার টাকা করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ভাতার আওতাধীন মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা ২ লাখ করার সিদ্ধান্ত হয়। জানা গেছে, চূড়ান্ত বাছাইয়ের পর সকল মুক্তিযোদ্ধাকে প্রতিমাসে সম্মানী ভাতা ৩ হাজার থেকে বাড়িয়ে ৫ হাজার টাকা করে প্রদানের জন্য নীতিগত অনুমোদন প্রদান করেছেন প্রধানমন্ত্রী।
মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, সরকার ২ লাখ মুক্তিযোদ্ধাকে ৩ হাজার টাকা করে ভাতা প্রদানের সিদ্ধান্ত নিলেও সারাদেশের ৬৪ জেলা থেকে এ পর্যন্ত মন্ত্রণালয়ের প্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধার তালিকা যাচাই-বাছাই করে ১ লাখ ৮৭ হাজার ৩০৮ মুক্তিযোদ্ধা রয়েছেন। তাছাড়া আরও ২৫ হাজার মুক্তিযোদ্ধার আবেদন যাচাই-বাছাই প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। তাই প্রাথমিকভাবে বর্তমানে নির্বাচিতদের ৩ হাজার টাকা করে ভাতা প্রদানের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। পরবর্তীতে বাকি ২৫ হাজার মুক্তিযোদ্ধাকে যাচাই-বাছাই শেষে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দের জন্য সরকারের অনুমোদন চাওয়া হবে।

ছবি